রুদ্ধশ্বাস ভাবে জয় ছিনিয়ে নিল ভারত, প্রথম ওডিআই ম্যাচে ঘটলো এই সমস্ত রেকর্ড।

টস জিতে ইংল্যান্ড ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগান প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় ভারতীয় দলকে, কিন্তু ইংল্যান্ডের বোলিংয়ের পেস এবং সুইং এর কাছে শিখর ধাওয়ান এর ব্যাটিং কিছুটা স্বাচ্ছন্দ হলেও রোহিত শর্মাকে নড়বড়ে ব্যাটিং করতে দেখা যায়।১৫.১ ওভারে বেন স্টোকসের একটি বলে কিপার বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে .২৮(৪২) রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন, তারপরে দুরন্ত ফর্মে থাকা বিরাট কোহলি ও শিখর ধাওয়ান ১০০ রানের বেশি পার্টনারশিপে ভারতীয় স্কোরবোর্ডে রান রেট বাড়িয়ে তোলে। বিরাট কোহলি তার অর্ধশত রান পূরণ করলেও অর্ধশতরান কে বড় রানে রূপান্তরিত করার আগে মার্ক উডের বলে সহজ ক্যাচ তুলে ৫৬।(৬০) রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরে। এরপর একে একে শ্রেয়াস আইয়ার ৬(৯) ও হার্দিক পান্ডিয়া ১(৯) রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরে।

sports_30এরপর সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে শিখর ধাওয়ান নিরাশ করে ক্রিকেটপ্রেমীদের, সেঞ্চুরি করার আগেই বেন স্টোকসের একটি শটপিচ বলে পুলশট খেলতে গিয়ে ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৯৮(১০৬) রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন, এরপর দলের হাল ধরে কে এল রাহুল ও ডেবিউ করা কুনাল পান্ডিয়া ‌। রাহুল ও কুনাল পান্ডিয়া দুরন্ত পার্টনারশিপে ভারতের স্কোর বোর্ড একটি বিশাল রানের পাহাড় রাখে ইংল্যান্ডের সামনে। কুনাল পান্ডিয়া ৫৮(৩১) ও রাহুল ৬২(৪৩) রানের অপরাজিত ইনিংস এর উপর ভর করে ইন্ডিয়া নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩১৭রান করতে সক্ষম হয়।

sports_30

রান তাড়া করতে নেমে ইংল্যান্ড এর দুই ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও জাসন রয় ভারতীয় বোলিং এর সঙ্গে রীতিমতো খেলা করে মাত্র ১৪ ওভারে ইংল্যান্ড এর রান দাঁড়ায় ১৩৫। সেই সময় ইংল্যান্ডের জয় যে নিশ্চিত ,সেটা ছাড়া আর কিছুই ভাবতে পারছিল না ক্রিকেটপ্রেমীরা । কোথায় আছে, তীরে এসে তরী ডুবে যায় এর থেকে কষ্টের আর কিছু হয়না। ঠিক তেমনই হয়েছে ইংল্যান্ডের সাথে, হঠাৎ ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় ডেবিউ করা প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ ও মিডিয়াম পেসার শার্দুল ঠাকুর।

১৪.২ ওভারে প্রসিদ্ধ জাসন রয় কে আউট করে প্যাভিলিয়নে ফেরায়, ঠিক পরের ওভারে বল করতে এসে ফেরায় বেন স্টোকসকে। এরপর শার্দুল ঠাকুর পরপর তিনটি উইকেট নিয়ে পরপর তিন ওভারে তিনটি উইকেট নিয়ে ম্যাচের মোড় পুরোপুরিভাবে ঘুরিয়ে দেয়, শার্দুল ঠাকুরের ঝুলিতে থাকে দুরন্ত ফর্মে থাকা তিন ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো ও জস বাটলার ক্যাপ্টেন ইয়ন মরগানের উইকেট যা পুরোপুরিভাবেই ম্যাচে রং বদলে দেয়। ইংল্যান্ড দল ৪২.১ ওভার খেলে ২৫১ রানে অলআউট হয়ে যায়। এছাড়াও আরও দুটি উইকেট নেয় প্রসিদ্ধ ও দুটি উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার ও একটি উইকেট নেন কুনাল পান্ডিয়া।ভারত ৬৬ রানে ইংল্যান্ড কে পরাজিত করে। ম্যাচের সেরা ঘোষণা করা হয় শিখর ধাওয়ান কে।

প্রথম ম্যাচ শেষে ঘটে অনেকগুলি রেকর্ড:

১. প্রথম কোন ভারতীয় বোলার হিসেবে ডেবিউ করে ওডিআই ক্রিকেটে চার (৪) উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব একমাত্র প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা র।

sports_30

২. ডেবিউ করে সাত নম্বরে নেমে সাবা করিম ও রবীন্দ্র জাদেজার পর তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসাবে অর্ধশত(৫০) রান করে।

sports_30

৩. নব্বইয়ের ঘরে আউট হওয়ার দিক থেকে শিখর ধাওয়ান বিরাট কোহলি ও বীরেন্দ্র শেবাগ এর সঙ্গে ছয়বার ৯০ এর ঘরে আউট হয়। সবথেকে বেশি বার আউট হয়েছে শচীন টেন্ডুলকার ১৮ বার ও মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন সাতবার(৭), তারপরে উঠে এসেছে শিখর ধাওয়ান (৬)।

sports_30

 

ভারত ও ইংল্যান্ড এর মধ্যে চলাকালীন ওয়ানডে সিরিজে প্রথম ম্যাচ শেষ হওয়ার পর হল এই সমস্ত রেকর্ডগুলি। বিস্তারিত জানতে নিচের লিংকে ক্লিক করে দেখে নিন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *