আজ বিশ্ব জল দিবস

বিশেষ প্রতিবেদন, ২২ মার্চ

আমরা জানি “জল মানেই জীবন”। তেমনি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে জলের জীবন রক্ষা করা এখনকার আধুনিক মানুষের কাজ। কেউ টুইট করছে কেউ লেখালেখি করছে “আজ বিশ্ব জল দিবস” আখেরি কি কোন লাভ হচ্ছে? মানুষের মধ্যে কি সচেতনতা বাড়িয়ে তোলা সম্ভব হচ্ছে?প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে!!!
আমার মনে আছে আমাদের দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন গঙ্গা পরিষ্কার করা হবে ।কিন্তু কোথায়? সে নোংরা আবর্জনা গঙ্গাবক্ষে বয়ে চলেছে ক্রমাগত। কোথায় আবার মানুষের মৃতদেহ গঙ্গাবক্ষে ভেসে উঠছে আরো কত কি!

blog_06
যদি গণনা করতে বসা যায় তাহলে গণিতের ভাষায় জল দূষণের কারণ এর সংখ্যা দাঁড়াবে অনন্ত অর্থাৎ (infinity)।
কিছু সমাজসেবক আছে যারা নিজেরা দায়িত্ব নিয়ে জলের জীবন বাঁচায় , আবার কিছু সমাজ সেবকের আড়ালে কিছু চোরা পকেটমার আছে যারা বিভিন্ন কারখানার মালিক পক্ষের সাথে সমঝোতা করার জলের জীবনটা অতিষ্ঠ করে তুলছে।
এখনো মফস্বল থেকে শহর বিভিন্ন রাস্তার ধারে যে সমস্ত পানীয় জলের ট্যাপ গুলি আছে সেগুলোর কোনটার ট্যাপ ভাঙা, কোনোটা থেকে জল অনর্গল বেরিয়ে যাচ্ছে তাহলে কি এটাই জল সংরক্ষণ বা জলের জীবন কে বাঁচানোর পদক্ষেপ?
মাঝেমধ্যে গুলিয়ে যায় হিসাব মিলাতে পারিনা!!!

এখন তো আবার সবাই খেলায় মত্ত দলবদল থেকে শুরু করে শত্রু বদল আরো কত কি!
আরে পাগলের দল দলবদল, রদবদল সবকিছু করতেই যে জল লাগে, জল না পান করলে যে বাঁচবেন না, সেটাও মাথায় রাখুন। শুধু সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে একটা টুইট করে দিলেই যে জলের জীবন বাঁচানো সম্ভব নয় সেটা কবে বুঝবেন পাগলের দল ???blog_06

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *